By Raju Das  |  Saturday, January 20, 2018  |  3 Comments

কলার দেবী তাই প্রায় সব বিদ্যায়তনেই সরস্বতী পূজা অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে তবে সাধারণত সব বাড়িতেই সরস্বতী পূজার প্রচলন আছে । কেউ সরস্বতীর মূর্তি পূজা করেন, কেউ ছবিতে । দেবী সরস্বতীর মূর্তি আমরা যা দেখি, তা হল দেবী শ্বেতবসনা,এক হাতে বীণা, অন্য হাতে বরাভয় মুদ্রা, দেবীর বাহন রাজহাঁস । ভারতীয় পুরাণ-সংস্কৃতিতে সরস্বতী বহুমাত্রিক দেবী হিসাবে পরিচিত। আদিতে সরস্বতীর পরিচয় ছিল উত্তর ভারতের সপ্তনদীর ( গঙ্গা, যমুনা, শতদ্রু, বিপাশা, ইরাবতী, চন্দ্রভাগা ও সরস্বতী ) অন্যতমা সরস্বতী নদীর অধিষ্ঠাত্রী দেবী হিসাবে। পরবর্তীকালে সেই নদীর দেবতা কী ভাবে শিক্ষা ও সংস্কৃতির অধিষ্ঠাত্রী দেবী হিসাবে পরিচিতি লাভ করল, তা খুবই বিস্ময়ের !প্রথমে দেখা যাক বিভিন্ন পুরাণগ্রন্থ সরস্বতীর উৎস সম্পর্কে কী বলছে। পদ্মপুরাণে সরস্বতী দক্ষকন্যা এবং কশ্যপ-পত্নী হিসাবে স্বীকৃত। ব্রহ্মবৈবর্ত পুরাণ অনুসারে সরস্বতী বিষ্ণু বা নারায়ণের পত্নী। কিন্তু পদ্মপুরাণে তিনি কশ্যপ মুণির পত্নী। শিবপুরাণ আর স্কন্ধপুরাণ মতে সরস্বতী আবার শিবেরও পত্নী । ঋগ্বেদ-পরবর্তী হিন্দু শাস্ত্র আলোচনায় সরস্বতী ব্রহ্মা-বিষ্ণু-মহেশ্বর এই ত্রিদেব-এর পত্নী রূপে বর্ণিত হলেও,

 Tags:  
read more
 By Farhana Chowdhury  |  Saturday, June 24, 2017  |  3 Comments

হাসিখুশি মেয়ে তারা। গেল বছর এস এস সি পাশ করেছে। জিপিএ ফাইভ পাওয়াতে বাবা তাকে একটি মোবাইল কিনে দেন। সিলেট থেকে বদলি হয়ে পুরো পরিবার ঢাকা আসে। তারাকে ভর্তি করানো হয় ঢাকার নামকরা একটি কলেজে। কলেজে সে একদম নতুন। কাউকে চেনেনা। এ অচেনার মাঝে থেকেও কয়েকদিনে বেশ ভাল ফ্রেন্ড পেয়ে যায় সে। দিনে ক্লাস আর রাতে পড়াশুনা। এভাবে সময় চলতে থাকে তারার। এভাবে কেটে যায় একটি বছর। একদিন হঠাৎ তারার মোবাইলে অচেনা নম্বর থেকে একটি মেসেজ আসে। মেসেজে লিখা ছিল আমি কি আপনার বন্ধু হতে পারি? তারা বুঝে উঠতে পারে না কি করবে? সে কোন জবাব দিল না। পরদিন সাহস করে সে ঐ অচেনা নম্বরে ফোন করল। মৃদু কণ্ঠে তারা বলল হ্যালো। আপনি কে? জানা গেল ছেলেটির পরিচয়। নাম অভি। অনার্স প্রথম বর্ষের ছাত্র। আমার নম্বর কিভাবে পেলেন। এর জবাব দেয় না অভি। উল্টো আবার প্রশ্ন করে। আমরা কি বন্ধু হতে পারি? তারা জীবনে প্রথম কারো কাছে বন্ধুত্বের অফার পায় তাও অচেনা কেউ।সে উত্তরে কিছুই বলে না। শুধু বলে আমার এক্সাম চলছে।পরে কথা বলব। এ বলে তারা ফোন রেখে দেয়। এভাবে কেটে যায় কয়েক মাস। খুব কম কথা হত তাদের। কথার চেয়ে চ্যাটিং হত বেশি। এভাবে করেই খুব ভাল বন্ধু হয়ে যায়

 Tags:  
read more
 By Manas Khanda  |  Thursday, October 20, 2016  |  3 Comments

বিশ্বাসে তোমার মিথ্যে আগুন মিথ্যে অসীমতা মুক্ত নেইকো নিজর বাসায় মিথ্যা স্বাধীনতা। জানিনা কেন একা কাঁদো অজানা অন্ধকারে ভালোবাসা তোমার বন্দি ছিল হারিয়েছ তুমি যারে। কোনো এক অনন্ত আকাশে তুমি চেয়ে দেখ হাজার তারার ভিড়ে জীবনের গান তুমি শেখ। কোনো এক  অশান্ত বাতাসে মেলে তোমার ডানা অপূর্ন সপ্নতে তোমার হারিয়ে যেতে মানা। ছোটো এক মায়াবি শহরে তোমার স্বপ্ন গুলো হারানো সব স্মৃতিরা তোমায় দেখায় আলো। অনেক অচেনা রাত্রী একা হেঁটছ কেউ নেইকো পথে হারানো দিন গুলো ফিরে পেতে চাও আমি ছিলাম সাথে। তোমার জন্য পৃথিবীটা আজকে নিয়েছে বিদায় তুমি নিঃস্ব হয়েছ যেন শূন্য চোখে দুঃখ দ্বিধায়। কত স্মৃতি আজ অন্ধকারময় ক্লান্ত তোমার সময় তোমার চোখে দুরের আকাশ একলা মনে হয়। তোমার জন্য বৃষ্টি ঝরে হয়ে আলোক ধারা কান্নাচেপে দেখ তুমি খুজে তোমায় কারা তোমার চোখে ঝরে তখন স্মৃতির ঘোলা জল নির্জনতায় শোনো তুমি অবাধ কলাহল।

 Tags:  
read more
 By Arpita Das  |  Thursday, September 24, 2015  |  3 Comments

চুপসে যাচ্ছে চাঁদ!অবিশ্বাস্য হলেও সত্য। জানাচ্ছে নাসা। আর এই চুপসে যাওয়ার পিছনে রয়েছে পৃথিবী। ‘লুনার রিকনিশনস অরবিটার ক্যামেরা (এলআরওসি)’ থেকে পাঠানো তথ্য বিশ্লেষণ করে উঠে আসছে এই তত্ত্ব।২০০৯-এ এই মহাকাশযানটিকে উৎক্ষেপণ করে নাসা। এর মূল উদ্দেশ্য ছিল চাঁদের চারপাশে ঘুরে সবিস্তারে তথ্য সংগ্রহ করা। এত দিন ধরে সেই কাজ চালাচ্ছিল এলআরওসি। আমেরিকার মেরিল্যান্ডে নাসার কেন্দ্রে ডিসকভারি প্রকল্পের বিজ্ঞানীরা সেই তথ্য বিশ্লেষণ করছিলেন।উচ্চ রেজলিউশনের ছবি পাঠাচ্ছিল এলআরওসি। সেই ছবিতে দেখা যাচ্ছিল চাঁদের গায়ে ভাঁজ ও ফাটলের সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে। প্রথমে বিজ্ঞানীদের ধারণা হয়েছিল চাঁদের কেন্দ্রে থাকা উত্তপ্ত অংশ ধীরে ধীরে শীতল হচ্ছে। এতেই ক্রমশ সঙ্কুচিত হচ্ছে চাঁদ। ফলে চাঁদের ভূত্বকে ভাঁজ ও ফাটল তৈরি হচ্ছে। দেখা গেল অনেক ভাঁজ, ফাটলই বেশ নবীন।কিন্তু হিসেব মিলছিল না। ক্রমেই বিজ্ঞানীদের মনে হত লাগল চাঁদের এই অবস্থার জন্য শুধু চাঁদই দায়ী নয়, অন্য কোনও শক্তিও আছে। ফলে আরও গবেষণা চলল। শেষে মিলল অদ্ভুত তথ্য। নাসার বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, দায়ী পৃথিবী।এত দিন আমরা জানতাম চাঁদের প্রভাবে পৃথিবীতে জোয়ার-ভাটা হয়। নাসা

 Tags:  
read more